• অবশেষে পদত্যাগ করলেন রবার্ট মুগাবে

    জিম্বাবুয়ের প্রেসিডেন্ট রবার্ট মুগাবে পদত্যাগ করেছেন বলে দেশটির স্পিকার জ্যাকব মুদেন্দা জানিয়েছেন। ব্যক্তিগত ইচ্ছায় এক পত্রের মাধ্যমে মুগাবে পদত্যাগ করেছেন বলে রয়টার্স ও বিবিসি জানিয়েছে।

    দেশটির সংসদ সদস্যরা মুগাবের বিরুদ্ধে অভিশংসনের উদ্যোগ নিয়ে আলোচনা করছিলেন এর মধ্যেই বিস্ময়কর এই ঘোষণা এলো। গত সপ্তাহে সেনাবাহিনী ক্ষমতা দখল করে তাকে গৃহবন্দি করে। এরপরেও তিনি পদত্যাগে রাজি হননি।

    ১৯৮০ সালে জিম্বাবুয়ে স্বাধীন হবার পর থেকে তিনি দেশটির ক্ষমতায় রয়েছেন। ৩৭ বছর পর পদত্যাগ করলেন তিনি। বুধবার সেনাবাহিনী ক্ষমতা দখলের পর থেকেই চরম উত্তেজনাকর পরিস্থিতির মধ্য দিয়ে প্রতিটি দিন যাচ্ছিলো জিম্বাবুয়ের। করণীয় নির্ধারণে গত রোববার বৈঠকে বসেন ক্ষমতাসীন জানু-পিএফ পার্টি।

    বৈঠকে রবার্ট মুগাবেকে দলীয় প্রধানের পদ থেকে বহিষ্কার করা হয়। তার স্থলাভিষিক্ত হন মুগাবের হাতে বহিষ্কৃত নেতা ও সাবেক ভাইস প্রেসিডেন্ট এমারসন নাঙ্গাগওয়া। এসময় মুগাবের স্ত্রী গ্রেস মুগাবেকেও পার্টি থেকে বহিষ্কার করা হয়। তারপর প্রেসিডেন্টের পদ ছাড়তে মুগাবেকে গতকাল সোমবার দুপুর পর্যন্ত সময়সীমা বেধে দেয়া হয়েছিলো। তা না হলে তাকে অভিশংসনের মুখোমুখি হতে হবে বলেও এসময় জানিয়ে দেয়া হয়।

    এর পরপরই টেলিভিশনে জাতির উদ্দেশে দেয়া এক ভাষণে মুগাবে পদত্যাগ করতে অস্বীকৃতি জানান। তিনি বলেন: ডিসেম্বরে ক্ষমতাসীন পার্টির কংগ্রেসের আগ পর্যন্ত ক্ষমতা ছাড়বেন না তিনি। বরং পদত্যাগের ঘোষণা দেয়ার বদলে উল্টো আসন্ন কংগ্রেসে নিজের জানু-পিএফ পার্টিকে নেতৃত্ব দেয়ার জিম্বাবুয়ে-রবার্ট মুগাবে-জিম্বাবুয়ের সেনাবাহিনীআকাঙ্ক্ষার কথা জানান এই গৃহবন্দী প্রেসিডেন্ট।

    Comments

    comments

    No Comments

    Leave a Reply

    Your email address will not be published. Required fields are marked *

    2 + 15 =