• ধানের খোল পচন রোগ দিশেহারা কৃষক

    প্রতিদিনের মত খালেক বসুনিয়া তার বোরো ধানের জমিতে গিয়ে প্রথমদিন হঠাৎ দেখতে পান ধানের গাছের গোড়া পচে গেছে। কয়েকদিন ভালো করে পর্যবেক্ষণ করলেন তিনি। দেখলেন প্রথমে ধানের গাছের পাতার উপর থেকে শুকে গিয়ে খড়ের রঙের মত রঙ ধারণ করে। ধীরে ধীরে গাছের গোড়া পচে যায়। পরে দেখেন গাছের পুরো ধানের গোছা নষ্ট হয়ে গেছে। দিশেহারা হয়ে পড়েন তিনি। খুঁজতে থাকেন তার পাশের ক্ষেতের অবস্থা কী।
    কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ী উপজেলার চন্দ্রখানা গ্রামের খালেক দেখতে পান তার বোরো ক্ষেতের মত আব্দুল আজিজ (৬০),আবুহোসেন (৪০) ও জামালের (৪০) জমিতে ও একই অবস্থা। কারণ খুজতে গিয়ে খালেক, জামাল, আজিজ, আবু হোসেন জানতে পান তাদের ব্যবহৃত বীজে ভেজাল ছিল।
    খোঁজ নিয়ে জান গেছে, খালেক বসুনিয়া,আবু হোসেন,জামাল চারা কিনে নিয়েছেন আব্দুল আজিজের কাছ থেকে। আব্দুল আজিজ বীজ নিয়েছেন উপজেলার ফুলবাড়ী বাজারের ‘মের্সাস কৃষি বীজ ভান্ডার’ থেকে। আজিজ ব্রি ধান-২৮ জাতের ১০ কেজির বীজ কিনে চারা তৈরী করেছেন। সে চারা সবাই রোপন করেছেন।
    ‘মের্সাস কৃষি বীজ ভান্ডার’-য়ে গিয়ে তারা জানতে পান,ব্রি ধান-২৮ এর ঐ বীজ উৎপাদন ও বাজারজাত কারী প্রতিষ্ঠান পঞ্চগড়ের বোদা বাজারের ‘রওশন সীড’।
    এরপর তারা যান উপজেলা কৃষি অফিসে। সেখান থেকে তাদেরকে জানানো হয়,ব্যবহৃত বীজে জীবাণু ছিল। যার ফলে ধানের খোল পচাঁ (সীথ বস্নাইট) হয়েছে। চিকিৎসা করলেই ভালো হবে।
    উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা সেকেন্দার আলী জানান,তিনি ঘটনাস্থলে গিয়ে আক্রত ক্ষেতের মালিকদের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থার পরামর্শদেওয়া হয়েছে। তিনি জানান,বীজবাহিত রোগের কারণেবোরো ধানের এই অবস্থা হতে পারে।
    খালেক বসুনিয়া জানান,তারা ক্ষেতের অনেক চিকিৎসা করেছেন কিন্তু কাজের কাজ কিছুই হয়নি।
    ‘মের্সাস কৃষি বীজ ভান্ডার’-এর মালিক মো.মিজানুর রহমান খন্দকারের সাথেমোবাইলফোনে কথা হলে তিনি পরে কথা বলবেন বলেই ফোন কেটে দেন।
    উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা টি আইএম জাহেদুর রহমান জানান, আক্রান্ত ধানের ক্ষেতেখোল পচাঁ (সীথ বস্নাইট) রোগ হয়েছে। যা সাধারণত বীজবাহিত হতে পারে।
    যোগাযোগ করা হলে পঞ্চগড়ের বোদায় অবস্থিত বীজ উৎপাদন ও বাজারজাতকারী প্রতিষ্ঠান ‘রওশন সীড’-এর স্বত্ত্বাধিকারীমো.সিরাজুল ইসলাম মোবাইল ফোনে যুগান্তরকে জানান, তার বীজে কোনো ভেজালও ছিল না। বীজ নিয়মিতশোধন করা হয়েছে ফলে বীজবাহিত রোগও হতে পারে না।
    তিনি বায়ার ক্রোপের ছত্রাকনাশক স্প্রে করার পরামর্শ দেন।image_779_117644

    Comments

    comments

    No Comments

    Leave a Reply

    Your email address will not be published. Required fields are marked *

    nine + 13 =