• নিউইয়র্কে কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষা ফ্রি

    গভর্নর এন্ড্রু কুমো নিউইয়র্ক স্টেট ও সিটির সকল পাবলিক কলেজের টিউশন ফ্রি করার ঘোষণা দিয়েছেন। গত মঙ্গলবার কুইন্সের লা-গার্ডিয়া কম্যুনিটি কলেজে গভর্নর তার এই সিদ্ধান্তের কথা ঘোষণা করেন। তার এই ঘোষণার সময় ভারমন্টের সিনেটর বার্নি স্যান্ডার্স উপস্থিত ছিলেন। স্যান্ডার্স বিগত প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ডেমোক্র্যাটিক পার্টির মনোনয়ন প্রত্যাশী ছিলেন। গভর্নর কুমোর এই যুগান্তকারী ঘোষণায় নিউইয়র্কের হাজার হাজার মধ্যবিত্ত ও নি¤œ মধ্যবিত্ত পরিবার উপকৃত হবে। বিপুল ব্যয়সাপেক্ষ কলেজ শিক্ষা খরচ বহনে অপারগ এই সব পরিবারগুলোর সন্তানেরা স্কুলের পরই শিক্ষা জীবনের ইতি টানতে বাধ্য হয়। গভর্নরের এই পদক্ষেপের ফলে বিপুল সংখ্যক বাংলাদেশি পরিবারসহ বিত্তহীন পরিবারের সন্তানদের উচ্চশিক্ষার পথ সুগম হবে। নিউইয়র্কে বাংলাদেশি ছাত্রছাত্রীরা বরাবরই ভালো ফল করে আসছে। কিন্তু তাদের অনেকেরই কলেজ শিক্ষার ব্যয় মিটাতে পড়াশোনার পাশাপাশি জবের সন্ধান করতে হয়। কলেজ শিক্ষার্থীদের বেশির ভাগই স্টুডেন্ট লোন গ্রহণ করে। আর সেই ঋণ পরিশোধে তাদেরকে হিমশিম খেতে হয় জীবন ভর।
    গভর্নরের এই পরিকল্পনা অনুযায়ী দুই বছর মেয়াদি কম্যুনিটি কলেজসহ নিউইয়র্ক স্টেট অথবা সিটির পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে ভর্তি হওয়া ছাত্রছাত্রীরা বিনা ব্যয়ে শিক্ষা লাভের সুবিধা পাবে। তবে সেই সব ছাত্রই ফ্রি টিউশনের সুবিধার আওতায় আসবে যাদের পরিবারের বার্ষিক আয় ১ লাখ ২৫ হাজার ডলার বা তার কম।
    ডেমোক্র্যাট দলীয় গভর্নর কুমো লা-গার্ডিয়া কলেজের সমাবেশে এই ঘোষণা দেওয়ার সময় তার পাশে ছিলেন ভারমন্টের সিনেটর বার্নি স্যান্ডার্স। যিনি দীর্ঘ দিন ধরে ছাত্রছাত্রীদের ফ্রি টিউশনের দাবি জানিয়ে আসছেন।
    বার্নি স্যান্ডার্স বলেন, কলেজে লেখাপড়া করতে ছাত্রদের যে পরিমাণ লোন নিতে হয় সেই ঋণের বোঝা টানতে তাদের ভবিষ্যৎ জীবন বরবাদ হয়ে যায়। আমেরিকান তরুণদের সমস্ত ভবিষ্যৎ সম্ভাবনা এই ঋণের কারণে পঙ্গু হয়ে যায়।
    গভর্নর কুমো খুব দ্রুতই তার এই সিদ্ধান্ত বাস্তবায়ন করতে চান। আসন্ন ফল মওসুম থেকে তিন বছর মেয়াদের যে শিক্ষা কার্যক্রম চালু হবে তখন থেকেই তিনি তার পরিকল্পনা বাস্তবায়নের অঙ্গীকারের কথা জানান। তবে তার এ পরিকল্পনা কার্যকর করতে লেজিসলেটিভ অনুমোদনের প্রয়োজন হবে। স্টেট সিনেট যখন মজুরি বৃদ্ধি ও অন্যান্য ইস্যুতে ভারাক্রান্ত, দুই দলের আইন প্রণেতাদের মধ্যে চলছে নানা বিষয়ে টানাপোড়েন, তখন এটি একটি নতুন বিষয় হিসাবে তাদের সামনে উপস্থাপিত হচ্ছে।
    গভর্নরের প্রস্তাবটি অনুমোদিত হলে কুমো প্রশাসনের হিসাব অনুযায়ী, নিউইয়র্কের কলেজগামী ছেলেমেয়ে আছে এমন এক মিলিয়ন পরিবার উপকৃত হবে। এই কর্মসূচি বাস্তবায়নে ২০১৯ সাল পর্যন্ত তিন বছর মেয়াদি হিসাবে ব্যয় ধরা হয়েছে ১৬৩ মিলিয়ন ডলারের মতো। এই হিসাব কিছু কম-বেশি হতে পারে, কারণ হিসাবটি নির্ভর করবে কত ছেলেমেয়ে এই সুবিধার আওতায় আসবে তার ওপর। চার বছর কোর্সের জন্য স্টেট ইউনিভার্সিটি অব নিউইর্কের (এসইউএনওয়াই-সুনি) বর্তমান টিউশন খরচ ৬ হাজার ৪৭০ ডলার। দুই বছর মেয়াদী কম্যুনিটি কলেজের টিউশন ৪ হাজার ৩৫০ ডলার। সিটি ইউনিভার্সিটি অব নিউইয়র্কের (সি ইউ এন ওয়াই-কুনি) টিউশনও মোটামুটি একই রকম।
    গভর্নর কুমোর এই পরিকল্পনার নাম দেয়া হয়েছে ‘এক্সেলসিয়র স্কলারশিপ’। এটা এখনও স্পষ্ট নয় যে এই পরিকল্পনার অর্থায়ন কিভাবে হবে। তবে প্রশাসন থেকে বলা হয়েছে, টিউশন এসিস্ট্যান্ট প্রোগ্রামে ইতোমধ্যেই এক বিলিয়ন ডলার বরাদ্দ দেয়া হয়েছে।

    Comments

    comments

    No Comments

    Leave a Reply

    Your email address will not be published. Required fields are marked *

    19 − fourteen =