• সিলেটে বিএনপি প্রার্থীকে সমর্থন দেবে জামায়াত: ফখরুল

    সিলেট সিটি নির্বাচনের কথা উল্লেখ করে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, ‘দেশের বর্তমান রাজনৈতিক পরিস্থিতি বিবেচনা করে জামায়াতে ইসলামী ২০ দলের প্রার্থী হিসেবে আরিফুল ইসলামকে সমর্থন করবে। তারা বিএনপির প্রার্থীর পক্ষে কাজ করবে বলে আমরা প্রত্যাশা করি।’

    তিনি বলেন, ‘আমাদের ২০ দলীয় জোটের মধ্যে কোনও বিবেধ নেই। সিলেট সিটিতে স্থানীয় সরকার নির্বাচন হচ্ছে, এটি নিয়ে ঐক্য নষ্ট হওয়ার কোনো সম্ভাবনা নেই। এটি জাতীয় নর্বাচনের কোনো প্রভাব ফেলবে না। আমরা আশা করি সিলেটে জামায়াত বিএনপি প্রার্থীকে সমর্থন দেবে। আমাদের ঐক্য অটুট থাকবে।’

    শনিবার (১৪ জুলাই) বিকেলে দলীয় চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার গুলশানের রাজনৈতিক কার্যালয়ে ২০ দলের বৈঠক শেষে তিনি এসব কথা বলেন।

    বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ও ২০ দলের সমন্বয়ক নজরুল ইসলাম খান বলেন, ‘আজ জোটের বৈঠকে সিলেটে মেয়র নির্বাচনে জামায়াতের প্রার্থীর বিষয়ে আলোচনা হয়েছে। সেখানে এখনও তাদের প্রার্থী আছে। আমরা বসে নেই এখনও তাদের সাথে আলোচনা চলছে। জামায়াতের মোবারক হোসাইন বৈঠকে ছিলেন তার সিদ্ধান্ত নেয়ার এখতিয়ার নেই। তিনি আমাদের অনুরোধটি তার দলের নেতাদের অবহিত করবেন। তারা যে সিদ্ধান্ত নেবে সেটিই সিদ্ধান্ত হবে।’

    নজরুল ইসলাম বলেন, ‘আমরা বিএনপিসহ জোটের নেতারা জামায়াত ইসলামকে অনুরোধ করেছি গণতন্ত্র, ঐক্য ও জাতির স্বার্থে সিদ্ধান্ত নেয়ার। আমরা আশা করবো জোটের প্রার্থীর বিজয় ও ঐক্যের কথা বিবেচনা করে তারা সিদ্ধান্ত নেবেন। কারণ রাজনৈতিক দল হিসেবে তাদের নিজেদের সিদ্ধান্ত নেয়ার অধিকার রয়েছে। আমরা কারও ওপর কোনো কিছু চাপিয়ে দিতে পারিনা। আমরা আশা করবো সঠিক সময়ে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে। জোটের ঐক্য ও বিজয়ের কথা চিন্তা করে জামায়তকে সিদ্ধান্ত নেয়ার আহ্বান জানাচ্ছি।’

    জোটের বৈঠকে জোটের শরিক জাতীয় পার্টির কাজী জাফরের মহাসচিব মোস্তফা জামাল হায়দারের স্ত্রীর মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করা হয়েছে। এছাড়া এলডিপি সভাপতি কর্নেল অলীর গাড়ি বহরে হামলার ঘটনায় প্রতিবাদ ও তীব্র নিন্দা এবং ক্ষোভ জানিয়েছে ২০ দল। জোট এসব হামলাকারীদের গ্রেফতারের দাবি জানিয়েছে। ওইসময় সেখানে দায়িত্বে থাকা পুলিশের নিশ্চুপ থাকার বিষয়ে তদন্ত করার দাবি জানিয়েছেন।

    বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের সভাপতিত্বে বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন, জোটের সমন্বয়ক ও বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান, জামায়াতে ইসলামির কর্মপরিষদ সদস্য মোবারক হোসেন ভূইয়া, বিজেপি আন্দালিব রহমান পার্থ, সাম্যবাদী দলের সাঈদ আহমদ, এলডিপির মহাসচিব ড. রেদোয়ান আহমদ, জাতীয় পার্টি (কাজী জাফর) আহসান হাবীব লিঙ্কন, লেবার পার্টির একাংশের সভাপতি ড.ডা.মোস্তাফিজুর রহমান ইরান, খেলাফত মজলিসের যুগ্ম মহাসচিব গোলাম আজগর ও জমিয়ত উলা আল ইসলামের মহিউদ্দিন ইকরাম প্রমুখ।

    Comments

    comments

    No Comments

    Leave a Reply

    Your email address will not be published. Required fields are marked *

    eleven + 6 =