• ১১ বছরের কনে সঙ্গে ১২ বছরের পাত্রের বিয়ে!

    নাসের হাসান নামে এক ব্যবসায়ীর বড় ছেলের জমকালো বিয়ের অনুষ্ঠান আয়োজন করা হয়েছিল। শুধু বড় ছেলের বিয়ে দিয়েই মন ভরেনি নাসেরের। তাই ঠিক করলেন এক পার্টিতেই ছোট ছেলের ওমরেরও (১২) বিয়ে দেবেন। কিন্তু ছোট ছেলের বয়স কম হলেও কোনো কিছুর পরোয়া করেননি ওই ব্যবসায়ী। মেয়ে খুঁজতে শুরু করেন। পরে পেয়েও যান ১১ বছর বয়সী এক কনে! বিয়ের ছবি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়তেই হৈচৈ শুরু।

    সম্প্রতি মিসরের রাজধানী কায়রো থেকে ৭৫ মাইল দূরে এ জমকালো বাল্যবিয়ের আয়োজন হয়। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে বিয়ের ছবি ভাইরাল হয়ে ছড়িয়ে পড়ায় শুরু হয়েছে তুমুল বিতর্ক।

    মিসরের আইন অনুযায়ী, ১৮ বছরের নিচে কোনো তরুণ বিয়ে করতে পারবে না। কিন্তু, এরপরও ছেলের বিয়ে দেন নাসের।

    সাংবাদিকদের তিনি বলেন, এতে অন্যায়ের কিছু নেই। বরং দুজনই দুজনকে খুব ভালোবাসে। ছোটবেলায়ই বিয়ের কাজটি সেরে ফেলা হল। বড় হলে যাতে ছেলে বা মেয়ে কাউকেই অন্য কেউ বিয়ে করতে না চায়; সে জন্য এটা করা হয়েছে।

    Comments

    comments

    No Comments

    Leave a Reply

    Your email address will not be published. Required fields are marked *

    10 + eleven =