• ?????: Carousel Slide One

    খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে বিক্ষোভ সমাবেশের ডাক

    দলীয় চেয়ারপারসন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে দায়ের করা সব মামলা প্রত্যাহার এবং তার নিঃশর্ত মুক্তি দাবিতে রাজধানীতে বিক্ষোভ সমাবেশ করবে বিএনপি। আগামী ২০ জুলাই শুক্রবার নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে এই সমাবেশ অনুষ্ঠিত হবে।

    রবিবার নয়াল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এ কর্মসূচির ঘোষণা করেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।
    সংবাদ সম্মেলনে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. আব্দুল মঈন খান, সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব অ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভী, প্রশিক্ষণ বিষয়ক সম্পাদক এবি এম মোশাররফ হোসেন, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুস সালাম আজাদ প্রমুখ।

    চলতি বছরের ৮ ফেব্রুয়ারি জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় খালেদা জিয়াকে পাঁচ বছরের কারাদণ্ড দেয় আদালত। এরপর থেকে তিনি পুরান ঢাকার নাজিমউদ্দিন রোডের পরিত্যক্ত কেন্দ্রীয় কারাগারে রয়েছেন। দণ্ড পাওয়া মামলায় জামিন পেলেও অন্য মামলায় গ্রেপ্তারি পরোয়ানা থাকায় তিনি কারাগারেই রয়েছেন।

    বিশ্বকাপ ফাইনালে আজ মুখোমুখি ফ্রান্স-ক্রোয়েশিয়া

    ইতিহাস গড়ে প্রথমবারের মতো চলতি রাশিয়া বিশ্বকাপের ফাইনালে ক্রোয়েশিয়া। আজ রোববার মস্কোর লুঝনিকি স্টেডিয়ামে ফাইনালে তাদের প্রতিপক্ষ ফ্রান্স। ইতোমধ্যে নিজেদের খেলায় যেমন সবার মন কেড়েছে ক্রোয়েশিয়ান খেলোয়াড়েরা তেমনি নিজের রূপের দ্যুতিতে সবার নজর কেড়েছেন দেশটির নারী প্রেসিডেন্ট মালিন্ডা গ্রাবার কিতারোভিচ। আজকের ফাইনালে তাই লড়াই হয়ে যেতে পারে ম্যাকরনের তারুণ্যের সঙ্গে মালিন্ডার রূপের। আজকের ফাইনাল স্টেডিয়ামে বসেই দেখবেন দুই দেশের প্রেসিডেন্ট। তবে তারা কতটা কাছাকাছি আসবেন তা এখনও জানা যায়নি।

    নিজের দীর্ঘদিনের সফল রাজনৈতিক ক্যারিয়ার তো বটেই বর্তমান সময়ে নিজের রূপ মুগ্ধতায় আলোচনায় আছেন ৫০ বছর বয়সী ক্রোয়েশিয়ার প্রেসিডেন্ট। তবে ম্যাকরনও একেবারে কম যান। নারীকে মুগ্ধ করায় ম্যাকরনের পারদর্শিতা জগত খ্যাত।

    ম্যাকরনের বর্তমান স্ত্রী ব্রিজিট থকনেজ ম্যাকরনের থেকে ২৪ বছরের বড়। মাত্র ১৫ বছর বয়সে হাইস্কুলে পড়ার সময় ব্রিজিটকে দেখেন ম্যাকরন। তারই স্কুল শিক্ষিকা ছিলেন তখনকার ৩৯ বছর বয়সী ব্রিজিট। আর সেই থেকেই ১৮ বছর বয়স থেকে ডেটিং শুরু করেন ইমানুয়েল ম্যাকরন।

    ক্রোয়েশিয়ার প্রেসিডেন্টও অবশ্য ম্যাকরনের থেকে ১০ বছরের বড়। ব্যক্তিত্ব সম্পন্ন সুপুরুষ হিসেবে খ্যাতি আছে ম্যাকরনের। বিশ্বকাপের মঞ্চে যদি কয়েক মুহুর্তের সাক্ষাতও হয় এই দুই রাষ্ট্র প্রধানের তাহলে ম্যাকরনের পৌরুষ আর কোলিন্ডার কোমলতার মধ্যে এক ঠান্ডা নীরব যুদ্ধ বেধেও যেতে পারে। আর যদি বেঁধেই যায় তাহলে জিতবে কে সেটাই এখন দেখার বিষয়।

    চলতি বছর বিশ্বে ৬৫ সাংবাদিক নিহত

    চলতি বছর সারাবিশ্বে ৬৫ জন সাংবাদিক ও গণমাধ্যমকর্মী নিহত হয়েছেন। রিপোর্টার্স উইদাউট বর্ডারস (আরএসএফ) মঙ্গলবার তাদের বার্ষিক প্রতিবেদনে এ তথ্য প্রকাশ করে। খবর এএফপি’র। ওই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, নিহতদের মধ্যে ৫০ জন পেশাগত রিপোর্টার।

    এ বছর সাংবাদিক হত্যার যে পরিসংখ্যান পাওয়া গেছে তা গত ১৪ বছরের মধ্যে সবচেয়ে কম বলে জানিয়েছে সংস্থাটি। আগের চেয়ে সাংবাদিকরা ঝুঁকিপূর্ণ কাজ ও এলাকা এড়িয়ে চলেছেন বলেই মৃত্যুর এই হার কমে এসেছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

    যুদ্ধবিধ্বস্ত সিরিয়া এখনো সাংবাদিকদের জন্য সবচেয়ে বিপজ্জনক দেশ। আরএসএফ বলছে, সেখানে ১২ জন সংবাদকর্মী নিহত হয়েছেন। আর এর পরের অবস্থানে রয়েছে মেক্সিকো। যেখানে ১১ জন সাংবাদিককে হত্যা করা হয়েছে।

    তবে এশিয়ার দেশগুলোর মধ্যে বিপজ্জনক দেশ হিসেবে উঠে এসেছে ফিলিপিন্সের নাম। যেখানে ২০১৬ সালে পাঁচজন সাংবাদিককে গুলি করে হত্যা করা হয়েছে।
    সাংবাদিকদের নিয়ে দেশটির প্রেসিডেন্ট রদ্রিগো দুর্তেতের নেতিবাচক মন্তব্যের প্রেক্ষিতেই এমনটা ঘটেছে বলে জানাচ্ছে আরএসএফ।
    তবে এর আগের বছর অর্থাৎ ২০১৫ সালে দেশটিতে কোনো সাংবাদিক নিহত হয়নি।

    এদিকে পেশাগত দায়িত্ব পালনকালে চলতি বছর বাংলাদেশেও সাংবাদিক নিহতের ঘটনা ঘটেছে। দৈনিক সমকালের সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি আবদুল হাকিম শিমুল পেশাগত দায়িত্ব পালনকালে নিহত হন।

    ট্রাম্পের ঘোষণার বিরুদ্ধে রাশিয়ার হুঁশিয়ারি

    ফিলিস্তিনের বাইতুল মোকাদ্দাস (জেরুজালেম) শহরকে ইহুদিবাদী ইসরাইলের রাজধানী হিসেবে স্বীকৃতি দেয়ার যে ঘোষণা মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প দিয়েছেন তার বিরুদ্ধে হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেছে রাশিয়া।

    রুশ পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বৃহস্পতিবার এক বিবৃতি প্রকাশ করে এ হুঁশিয়ারি দিয়েছে। বিবৃতিতে বলা হয়েছে, বাইতুল মোকাদ্দাসকে ইসরাইলের রাজধানী হিসেবে স্বীকৃতি দিয়ে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প মধ্যপ্রাচ্যে নতুন সংকটের জন্ম দিয়েছেন।

    রুশ পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বিবৃতিতে আরো বলা হয়েছে, ফিলিস্তিন প্রসঙ্গে জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদ ও সাধারণ পরিষদের সবগুলো প্রস্তাবের প্রতি সমর্থন জানায় রাশিয়া। সেইসঙ্গে আরব দেশগুলোর শান্তি পরিকল্পনার প্রতিও রাশিয়ার সমর্থন রয়েছে বলে বিবৃতিতে উল্লেখ করা হয়েছে।

    রাশিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বিবৃতিতে আরো বলা হয়েছে, ট্রাম্প বাইতুল মোকাদ্দাসের ব্যাপারে যে ঘোষণা দিয়েছেন তা একটি একতরফা পদক্ষেপ এবং এই ঘোষণা শান্তির পক্ষে যাবে না।-পার্সটুডে

    জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের প্রস্তাবে বাইতুল মোকাদ্দাস বা জেরুজালেম শহরকে ইহুদিবাদী ইসরাইলের হাতে অধিকৃত শহর হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে। কাজেই আন্তর্জাতিকভাবে স্বীকৃত একটি দখলীকৃত শহরকে ইসরাইল নিজের রাজধানী হিসেবে ব্যবহার করতে পারে না বলে বিশ্বের স্বাধীনচেতা প্রতিটি মানুষ মনে করছেন।

    এ ছাড়া, এই শহরে রয়েছে মুসলমানদের প্রথম ক্বেবলা আল-আকসা মসজিদ। ফিলিস্তিনি জনগণ বলছেন, এই শহর ফিলিস্তিনি ভূখণ্ডের অবিচ্ছেদ্য অংশ এবং অন্য কোনো দেশ বা জাতির পক্ষে এর মালিকানা দাবি করার বিন্দুমাত্র অধিকার নেই।

    ট্রাম্পের ঘোষণার বিরুদ্ধে তুরস্কে বিক্ষোভ

    ফিলিস্তিনের বায়তুল মুকাদ্দাস শহরকে ইহুদিবাদী ইসরাইলের রাজধানী হিসেবে স্বীকৃতি দেয়ার বিরুদ্ধে তুরস্কের রাজধানী আংকারা ও ইস্তাম্বুলে শত শত মানুষ বিক্ষোভ করেছেন। এ সময় তারা মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের এ ঘোষণার তীব্র নিন্দা ও সমালোচনা করেন।

    দুই শহরের বিক্ষোভই শান্তিপূর্ণ ছিল তবে বিক্ষুব্ধ জনতা কোথাও কোথাও কিছু কাগজে আগুন ধরিয়ে প্রতিবাদ করেন এবং ইহুদিবাদী ইসরাইলের পতাকা পোড়ান। বিক্ষোভকারীদের অনেকের হাতে তুরস্কের পতাকা ও নানা রকম ফেস্টুন দেখা যায় যাতে লেখা ছিল “ফিলিস্তিন মুক্ত করুন।”
    বিক্ষোভকারীরা তুরস্কে ইসরাইলি কন্স্যুলেট ভবনের দেয়ালেও ফিলিস্তিন মুক্ত করার দাবিতে নানা স্লোগান লিখেছেন। এছাড়া, তুরস্কের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় মার্কিন ঘোষণার নিন্দা ও সমালোচনা করে দায়িত্বজ্ঞানহীন এ সিদ্ধান্ত পরিবর্তনের আহ্বান জানিয়েছে।

    গতকাল (বধবার) মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প সারা বিশ্বের বিরোধিতা ও প্রতিবাদ উপেক্ষা করে বায়তুল মুকাদ্দাসকে ইহুদিবাদী ইসরাইলের রাজধানী হিসেবে স্বীকৃতি দিয়েছেন। এছাড়া, তেল আবিব থেকে মার্কিন দূতাবাস সরিয়ে বায়তুল মুকাদ্দাস শহরে নেয়ার ঘোষণাও দিয়েছেন তিনি। ট্রাম্পের এই ঘোষণা আন্তর্জাতিক আইনের সুস্পষ্ট লঙ্ঘন।

    মৌলভীবাজারে ছাত্রলীগের দু’গ্রুপের সংর্ঘষে নিহত ২

    মৌলভীবাজারে ছাত্রলীগের দু’গ্রুপের সংঘর্ষে দুইজন নিহত হয়েছেন।

    নিহতরা হলেন, পৌর শহরের পুরাতন হাসপাতাল রোডের বাসিন্দা আবু বক্কর সিদ্দিকের ছেলে মৌলভীবাজার সরকারী কলেজের একাদশ শ্রেণির শিক্ষার্থী শাহবাব রহমান (২০) ও সদর উপজেলার দুর্ণভপুর গ্রামের বিলাল হোসেনের ছেলে সরকারী উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী মাহি আহমদ (১৭)।
    বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে শহরের সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় ছাত্রাবাসের সামনে এ ঘটনা ঘটে। পরে স্থানীয়রা আহতাবস্থায় তাদের উদ্ধার করে মৌলভীবাজার সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে দায়িত্বরত চিকিৎসক তাদের মৃত ঘোষণা করেন।
    মৌলভীবাজার জেলা পুলিশ সুপার মো. শাহ জালাল এ তথ্য নিশ্চিত করে বলেন, ছাত্রলীগের অভ্যন্তরীণ কোন্দলের জের ধরে এ হত্যাকাণ্ড ঘটে থাকতে পারে। তবে বিষয়টি তদন্ত করে দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

    কাজে আনন্দ লাভ করতে পারলেই সফল হওয়া সম্ভব: অস্কারজয়ী নাফিস

    কাজে আনন্দ লাভ করতে পারলেই সফল হওয়া সম্ভব উল্লেখ করে অস্কারজয়ী বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত সফটওয়্যার প্রকৌশলী এবং অ্যানিমেশন বিশেষজ্ঞ নাফিস বিন জাফর তরুণদের উদ্দেশ্যে বলেছেন, ক্যারিয়ারের শুরুতে অনেক সংগ্রাম করতে হয়েছে। এতো সহজেই সফলতার দেখা পাইনি। কাজ করতে করতেই শিখেছি, সামনে এগিয়েছি। কোনো কাজে আনন্দ লাভ করতে পারলেই সে কাজে সফল হওয়া সম্ভব। আজ ডিজিটাল ওয়ার্ল্ডের দ্বিতীয় দিনে অনুষ্ঠিত ‘মিট নাফিস বিন জাফর–দ্য অ্যাকাডেমি অ্যাওয়ার্ড উইনার’ শীর্ষক সেশনে তরুণদের উদ্দেশ্যে তিনি এ কথা বলেন।

    অনুষ্ঠানের শুরুতে নাফিস বলেন, আমার জার্নিটা মসৃণ ছিল না। আমি কাজ করতে করতে শিখেছি। শুরুতে আমি একা ছিলাম। আর এখন আমি টিমকে নেতৃত্ব দেই। সবাইকে ম্যানেজ করাই আমার কাজ। আমার স্বপ্ন আমি অন্যদের সহযোগিতায় পূরণ করছি।

    যার ফলশ্রুতিতে আমি দু’বার অস্কার পেয়েছি। এখন আমার সঙ্গে ৫০০ লোক কাজ করছে। সিনেমা তৈরি একার কাজ নয়। এটি একটি টিম ওয়ার্ক।
    তরুণদের উদ্দেশ্য করে নাফিস বলেন, আপনার যদি এই সেক্টরে কাজ করতে চান তবে থিয়েটারে কাজ করুন। নাটকে কাজ করুন। প্রথমে ছোট গল্প তৈরি করুন। শট ফিল্ম বানান। প্রয়োজনে টিভিতে শিক্ষানবীস হিসেবে কাজ করেন। এসব কাজ করতে করতে আপনি বুঝতে পারবেন আপনার কোন কাজটা ভালো লাগে। একটা নাটক কিংবা ছবিতে শুধু ক্যারেক্টার ছাড়াও পেছনে অনেক কিছু থাকে। সেগুলো খুঁটিয়ে খুঁটিয়ে দেখতে হবে। না হলে ভালো ফিল্ম মেকার হওয়া যাবে না।

    অ্যানিমেশনে ক্যারিয়ার গড়া প্রসঙ্গে নাফিস বলেন, এখানে ক্যারিয়ার গড়তে চাইলে প্রোগ্রামিং ভাষা জানতে হবে। সফটওয়্যার প্রকৌশলী হওয়ায় আমার এদিকে ধারণা ছিল। অ্যানিমেশনের বাকি বিষয়গুলো আমি কাজ করতে করতেই শিখেছি।

    উল্লেখ্য যে, বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত নাফিস বিন জাফর ২০০৭ সালে প্রথম অস্কার জেতেন। ′পাইরেটস অব দ্য ক্যারিবিয়ান: অ্যাট ওয়ার্ল্ডস এন্ড′ মুভিতে অ্যানিমেশনের জন্য তিনি এই পুরস্কার জেতেন। পরবর্তীতে ২০১৪ সালে তিনি দ্বিতীয়বারের মতো অস্কার জেতেন ‘২০১২’ ছবিতে ড্রপ ডেস্ট্রাকশন টুলকিট ব্যবহারের জন্য।

    এসিড আক্রান্ত জাবেদ হোসাইনকে সাথে নিয়ে এসিড চার্টারে স্বাক্ষর করলেন মেয়র জন বিগস

    টাওয়ার হ্যামলেটসের মেয়র জন বিগস এসিড চার্টারকে সমর্থনের জন্য বারার সকল এসিড বিক্রেতার কাছে বিশেষ আবেদন জানিয়েছেন। ৬ ডিসে“র, বুধবার টাউন হলে এসিড আক্রান্ত জাবেদ হোসাইনকে সাথে নিয়ে এ সংক্রান্ত বিশেষ চার্টারে স্বাক্ষরকালে মেয়র এই আহধ্বান জানান।
    এসিড বিক্রয়কালে কী ধরনের সতর্কতা অবল“ন করতে হবে তা এই চাটারে উল্লেখ রয়েছে। টাওয়ার হ্যামলেটসের বেশকটি এসিড বিক্রেতা প্রতিষ্টান ইতিমধ্যে মেয়রের এই উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়ে এতে স্বাক্ষর করেছেন।
    চার্টারে এসিড বিক্রেতাদের উদ্দেশ্যে যে সব নির্দেশনা রয়েছে তার মধ্যে উল্লেখযোগ্য দিকগুলো হলো – অপ্রাপ্ত বয়স্ক এবং সন্দেহভাজনদের কাছে এসিড বিক্রি না করা – কাউন্সিলের উদ্যোগে এসিড বিক্রেতাদের জন্য বিশেষ ট্রেনিংয়ে অংশগ্রহন চার্টারে স্বাক্ষর করে মেয়র বলেন, এসিড আক্রমন বন্ধে কঠোর আইন দরকার। আর এজন্য ৫টি প্রস্তাব রেখে হোম সেক্রেটারী বরাবরে বিশেষ পিটিশন দাখিল করেছি। কিন্তু আইনে এখনো কোন পরিবর্তন না আসায় এব্যাপারে গনসচেতনতা বাড়ানোর উদ্যোগ নিয়েছি। আমরা সবাইকে সাথে নিয়ে একে একটি সামাজিক আন্দোলন হিসাবে গড়ে তুলতে চাই। আজকের চার্টার এই উদ্যোগেরই অংশ।

    মেয়র বলেন, সমাজের অংশ হিসাবে এধরনের ভয়ংকর অপরাধ দমনে আমাদের সবারই দায়িত্ব রয়েছে। বিশেষ করে এসিড বিক্রেতারা যদি এব্যাপারে বিশেষ সতর্ক হন তাহলে এক্ষেত্রে ইতিবাচক পরিবর্তন আসবে। আর এজন্য আমরা তাদের সাথে পার্টনারশীপ গড়ে তুলতে চাচ্চিছ। যারা এতে স্বাক্ষর করবেন তাদের জন্য আমরা বিশেষ ট্রেনিংয়েরও ব্যবস্থা করেছি। আশা করছি সমাজের স্বার্থে তারা এগিয়ে আসবেন এবং কাউন্সিলকে এব্যাপারে সহযোগিতা করবেন।
    মেয়র বলেন, আমরা ঘটনা ঘটার জন্য অপেক্ষা করতে পারিনা। আগে ভাগেই আমাদেরকে ব্যবস্থা নিতে হবে। মেয়রের চার্টারে সমর্থনকারী এসিড আক্রান্ত জাবেদ হোসাইন তার প্রতিক্রিয়ায় বলেন, এব্যাপারে আমার অভিজ্ঞতা ভয়ংকর। আমার মতো আর কারো যাতে এধরনের অভিজ্ঞতা না হয় এজন্য এখনই ব্যবস্থা নিতে হবে। আমি মনে করি এসিড বিক্রেতাদের কিছুটা হলেও দায়িত্ব রয়েছে। চার্টারের মাধ্যমে তাদের সাথে যৌথভাবে কাজ করার জন্য মেয়র জন বিগসের উদ্যোগকে আমি সমর্থন জানাই। আমি মনে করি এটি একটি ভালো উদ্যোগ। এদিকে টাওয়ার হ্যামলেটস কাউন্সিল ইতিমধ্যে বারার বিভিন্ন শপ তথা এসিড বিক্রেতাদের কাছে লিখিত ভাবে ষ্ক্রওয়ান শট ড্রেইন ক্লিনারম্ব বিক্রির ক্ষেত্রে সতর্কতা অবল“ের আহবান জানিয়েছে। বিশেষ করে যাদের বয়স ২১ বছরের নীচে তাদের কাছে এটি বিক্রি না করার জন্য অনুরুধের পাশাপাশি সন্দেভাজনদের পরিচয় জানতে অনুরুধ করা হয়েছে।

    উল্লেখ্য যে মেয়র গত সেপ্টে“রে হোম সেক্রেটারীর কাছে লিখিত পিটিশনের মাধ্যমে ৫ দফা দাবী তুলে ধরেন। পিটিশনে মেয়র প্রস্তাবিত ৫ দফা দাবী হচ্চেছ- ১. যথাযথ কারন ছাড়া এসিড বহনকে ছুরি বহনের মতোই অপরাধ হিসাবে গণ্য করতে হবে, ২. এসিড ক্রয়ে বয়সসীমা নির্ধারন করতে হবে, ৩. ক্যাশ দিয়ে এসিড বিক্রি নিষিদ্ধ করতে হবে। ক্রেডিট এবং ডেবিট কার্ড দিয়ে এসিড বিক্রি করা হলে অপরাধীকে চি?িত করা সহজ হবে, ৪. এসিডকে কম করোসিভ সম্পন্ন এবং ঘন করতে নির্মাতাদের চাপ দিতে হবে যাতে করে সহজে স্প্রে করা না যায় এবং ৫. এসিড বিক্রেতাদের স্থানীয় কাউন্সিলে রেজিস্টার করতে হবে (২০১৫ সালে কনজারভেটিভ সরকার কতৃক বাতিলকৃত) এবং স্পট চেকের জন্য কাউন্সিলকে ফান্ড দিতে হবে।

    ফেনী আওয়ামী লীগ নেতার অভিযোগ নিজাম হাজারীর লোকজন খালেদা জিয়ার গাড়িবহরে হামলা করে

    বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার গাড়িবহরে হামলার পেছনে স্থানীয় সংসদ সদস্য নিজাম উদ্দিন হাজারীর লোকজন জড়িত ছিল বলে অভিযোগ করেছেন জেলা আওয়ামী লীগ নেতা আজহারুল হক। গতকাল জাতীয় প্রেস ক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ অভিযোগ করেন। লিখিত বক্তব্যে আজহারুল হক বলেন, সমপ্রতি ফেনীতে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার গাড়িবহরে যে হামলার ঘটনা ঘটে, সেটি পূর্ব পরিকল্পিত ছিল। কারণ, সেদিন বেছে বেছে ডিবিসি, চ্যানেল আই, একাত্তর, বৈশাখী টেলিভিশন ছাড়া প্রথম আলো ও ডেইলি স্টারের গাড়ি ভাঙচুর করা হয়। এ পুরো ঘটনার নেপথ্য নায়ক নিজাম হাজারী। বিভিন্ন গণমাধ্যমেও এ সংক্রান্ত সংবাদ এসেছে। মূলত তার বিরুদ্ধে সংবাদ প্রকাশের প্রতিশোধ হিসেবেই নিজাম হাজারী ক্যাডারদের দিয়ে ওই সব গাড়িতে হামলা চালায়।
    জেলা আওয়ামী লীগের কার্যকরী সদস্য আজহারুল হক অভিযোগ করেন, নিজাম হাজারীর ব্যক্তিগত আক্রোশ ও রোষানলের কারণে তিনিসহ এলাকার অনেক নেতাকর্মী এখন এলাকাছাড়া। এমপির নামে চাঁদা আদায় করা হয় উল্লেখ করে তিনি বলেন, পানি উন্নয়ন বোর্ড (পাউবো), স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর (এলজিইডি), সড়ক ও জনপথ (সওজ), গণপূর্ত, পৌরসভা, জেলা পরিষদ ও বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচি (এডিপি) থেকে বিভিন্ন হারে কমিশন নেন নিজাম উদ্দিন হাজারী। এছাড়া তার নামে বিভিন্ন টার্মিনাল থেকে টোল আদায় করা হয়। লিখিত বক্তব্যে আজহারুল হক অভিযোগ করেন, নিজাম উদ্দিন হাজারীর বিরুদ্ধে একটি অস্ত্র মামলা ছিল। সেই মামলায় তিনি নির্দিষ্ট মেয়াদের কম সময় সাজা খাটেন। এ ঘটনায় একটি রিট করেন জেলা যুবলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক সাখাওয়াত হোসেন। এলাকায় আজহারুলের ঘনিষ্ঠ হিসেবে পরিচিত সাখাওয়াত। রিট করার কারণে সংসদ সদস্য নিজাম উদ্দিন হাজারী তার বিরুদ্ধে দ্রুত বিচার আইনসহ বিভিন্ন ধারায় অন্তত নয়টি মামলা করেছেন।
    তিনি তার বক্তব্যে বলেন, ২০১৪ সালের ৫ই জানুয়ারি অনুষ্ঠিত জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ফেনী-২ আসনে নিজাম হাজারী বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় সংসদ সদস্য নির্বাচিত হওয়ার পর থেকে তার ক্যাডার বাহিনী দ্বারা লুটপাট ও সীমাহীন অনিয়ম শুরু করেন। এসব কাজে যারা তাকে বাধা দিয়েছে তাদেরকে হুমকি-ধমকি ও সন্ত্রাসী হামলা বা পুলিশ প্রশাসন দ্বারা মিথ্যা মামলায় জড়িয়ে হয়রানি করছেন। তার জিঘাংসার প্রথম শিকার ফুলগাজী উপজেলা পরিষদের নির্বাচিত চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি একরামুল হক একরাম। গত ২০১৪ সালে দিবালোকে তাকে হত্যা করা হয়। সংবাদ সম্মেলনে তিনি আরো বলেন, তার অবৈধ কার্যকলাপ মেনে নিতে পারিনি বলে আমার বিরুদ্ধে এমপি নিজাম হাজারী বিভিন্ন রকম চক্রান্ত শুরু করেন। তার আদেশ ও আঙ্গুলের ইশারায় গোটা প্রশাসন পরিচালিত হচ্ছে। আমি তার ভয়ে নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি। এ ব্যাপারে আমি মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করছি। ফেনী জেলা যুবলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক সাখাওয়াত হোসেন, জেলা তাঁতী লীগের সাধারণ সম্পাদক তানভীর হাসান, জেলা ওলামা লীগের সাধারণ সম্পাদক শামসুল হুদা, জেলা তাঁতী লীগের উপদেষ্টা কাজী ফারুক প্রমুখ সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন।

    দুদকের মামলা থেকে মেয়র সাক্কুকে অব্যাহতি

    জ্ঞাত আয়বহির্ভূত সম্পত্তি অর্জনের মামলায় কুমিল্লা সিটি করপোরেশনের (কুসিক) মেয়র মনিরুল হক সাক্কুকে মামলার দায় থেকে অব্যাহতি দিয়েছেন আদালত।

    আজ মঙ্গলবার ঢাকার বিশেষ জজ আদালত ৮ এর বিচারক শামীম আহম্মদ এ আদেশ দেন।

    সাক্কুর আইনজীবী মাসুদ আহমেদ তালুকদার সাংবাদিকদের জানান, সাক্কুর বিরুদ্ধে মামলায় কোনো অভিযোগ না থাকায় বিচারক তাঁকে অব্যাহতি দিয়েছেন।

    গত ১৮ এপ্রিল এ মামলার অভিযোগপত্র আমলে নিয়ে সাক্কুর বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেন আদালত। এরপর ৯ মে আদালতে আত্মসমর্পণ করে জামিন নেন সাক্কু।

    এক কোটি ১২ লাখ ৪০ হাজার টাকার তথ্য গোপন এবং চার কোটি ৫৮ লাখ টাকা জ্ঞাত আয়বহির্ভূত সম্পত্তি অর্জনের অভিযোগে মেয়রের বিরুদ্ধে ওই মামলা হয়।

    মামলার নথি সূত্রে জানা যায়, ২০০৮ সালের ৭ জানুয়ারি রাজধানীর রমনা থানায় সাক্কুর বিরুদ্ধে দুদক এ মামলা করে। পরে ২০১৬ সালের নভেম্বরে সাক্কুকে অভিযুক্ত করে ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিমের (সিএমএম) আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করে পুলিশ।

    গত ৩০ মার্চ কুমিল্লা সিটিতে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। এতে আওয়ামী লীগের প্রার্থীকে পরাজিত করে মেয়র নির্বাচিত হন বিএনপির প্রার্থী মনিরুল হক সাক্কু। টানা দ্বিতীয়বারের মতো মেয়রের দায়িত্ব নেন তিনি।