• ?????: ইউরোপ

    থেরেসা মে কে সরাতে একমত ৪০ এমপি

    ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মের প্রতি অনাস্থা দিতে একমত হয়েছেন যুক্তরাজ্যের পার্লামেন্টে তাঁরই দল কনজারভেটিভ পার্টির ৪০ সদস্য। সানডে টাইমস সংবাদপত্র রোববার এক খবরে এ তথ্য জানায়।

    ব্রিটিশ পার্লামেন্টে কনজারভেটিভ পার্টির আর আট সদস্য যদি এই অনাস্থা জানানো এমপিদের দলে যোগ দেন, তাহলে দলের নতুন নেতা নির্বাচনের ব্যাপারে তাঁরা সিদ্ধান্ত নিতে পারবেন। এতে করে একদিকে যেমন থেরেসা মে সরে যেতে বাধ্য হবেন, অন্যদিকে ক্ষমতাসীন কনজারভেটিভ পার্টি অন্য একজনকে প্রধানমন্ত্রীর পদে বসাতে পারবে।

    ইউরোপীয় ইউনিয়ন থেকে যুক্তরাজ্যের বিচ্ছেদ প্রক্রিয়া (ব্রেক্সিট) এবং একাধিক মন্ত্রীর কেলেঙ্কারির ঘটনায় থেরেসা মের সরকার বেকায়দায় রয়েছে। এর আগে দলের সম্মেলনে দেওয়া বক্তব্যের কারণে নেতৃত্ব হাতছাড়া হতে বসেছিল মের।

    জেনে নিন সামরিক শক্তিতে কতটা শক্তিশালী রাশিয়া

    বিশ্বজুড়ে আতঙ্ক সৃষ্টি করে নিজেদের সামরিক বাহিনীকে শক্তিশালী করতে ব্যস্ত পৃথিবীর উন্নত দেশগুলো। ধারাবাহিকভাবে চলছে তাদের শক্তি প্রদর্শনের মহড়া।

    সামরিক শক্তিতে যুক্তরাষ্ট্রের পরই রাশিয়ার অবস্থান। বিশ্বের অন্যতম বৃহত্তম দেশ এটি। পাশাপাশি পৃথিবীর সবচেয়ে বেশি খনিজ সম্পদ রয়েছে এই রাশিয়াতেই। এছাড়া বিশ্বের বৃহত্তম অস্ত্রবিক্রেতা ও নির্মাতা রাষ্ট্র রাশিয়া।
    তবে আর দেরি না করে চলুন জেনে নেই সামরিক শক্তিতে কতটা শক্তিশালী রাশিয়া।

    সোভিয়েত ইউনিয়ন ভেঙে যাওয়ার পর ১৯৯২ সালে ৭ মে তৎকালীন রাশিয়া ফেডারেশনের প্রেসিডেন্ট বরিস ইয়েলৎসিন সোভিয়েত আর্ম ফোর্সের সদস্য ও সরঞ্জাম নিয়ে প্রতিষ্ঠা করেন রাশিয়ান সামরিক বাহিনী। সোভিয়েত ইউনিয়ন পতনের আগে এটি ছিল বিশ্বের অত্যন্ত শক্তিশালী সামরিক বাহিনী। যা সেই সময় সৈন্য এবং পারমাণবিক অস্ত্র সংখ্যার দিক থেকে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের চেয়ে এগিয়ে ছিল।

    স্থল বাহিনী, বিমানবাহিনী, নৌবাহিনী, স্ট্র্যাজিক রকেট ফোর্স, বিশেষ বাহিনী এবং এয়ারবোম ট্রুপস নিয়ে রাশিয়া ফেডারেশনের সামরিক বাহিনী গঠিত।

    রাশিয়া

    নিয়মিত সেনা সদস্য- ১০,৪০,০০০,
    রিজার্ভ আর্মি- ২০,৩৫,০০০
    আধা-সামরিক বাহিনীতে রয়েছে- ৪,৪৯,০০০
    সাঁজোয়া ট্যাংক- ২২,৭১০টি
    বিমানবাহী যুদ্ধজাহাজ- ১টি
    উভচর যুদ্ধজাহাজ- ১৫টি
    ক্রুজার- ৫টি
    ডেস্ট্রয়ার যুদ্ধজাহাজ- ১৪টি
    ফ্রিগেট- ৫টি
    করভিট যুদ্ধজাহাজ- ৭০টি
    নিউক্লিয়ার সাবমেরিন- ৩৩টি
    সাবমেরিন- ১৭টি
    যুদ্ধবিমান- ১,২৬৪টি
    বোমারু বিমান- ১৯৫টি
    জঙ্গিবিমান- ১,২৬৭টি
    সাঁজোয়া হেলিকপ্টার- ১,৬৫৫টি
    পরমাণু অস্ত্র- ১২ হাজার

    রাশিয়া বিশ্বের অনেক দেশে অস্ত্র রপ্তানি করে থাকে। দুনিয়ার সবচেয়ে বেশি ব্যবহৃত এবং জনপ্রিয় অটোমেটিক রাইফেল একে-৪৭-এর নির্মাতা ও ডিজাইনার রাশিয়ার লেফটেন্যান্ট জেনারেল মিখাইল কালাশনিকভ। এ পর্যন্ত প্রায় ১০ কোটিরও অধিক এই অস্ত্র বিক্রি হয়েছে এবং বিশ্বের প্রায় ৫০টিরও বেশি দেশের সামরিক বাহিনীতে এটি ব্যবহৃত হচ্ছে।

    ইংল্যান্ডের নিউক্যাসলে সড়ক দুর্ঘটনায় শিশুসহ নিহত ২

    ইংল্যান্ডের নিউক্যাসলে সড়ক দুর্ঘটনায় আট বছর বয়সী এক শিশুসহ দুইজন নিহত হয়েছে। দেশটির ডিপার্টমেন্ট অব ফ্যামিলি অ্যান্ড কমিউনিটি সার্ভিসেসের তত্ত্বাবধানে থাকাবস্থায় ওই দুর্ঘটনা ঘটে। খবর ডেইলি টেলিগ্রাফের।

    প্রতিষ্ঠানটির ডে-কেয়ার কর্মী র‌্যাচেল মার্টিন ক্যামেরুন পার্কের কাছে গাড়ি পার্ক করলে শিশুটি দরজা খুলে দৌড় দেয়। র‌্যাচেলও এসময় শিশুটির পেছনে দৌড় দেয় পরে একটি ট্রাক দুইজনকে চাপা দেয়।

    ট্রাফিক এবং হাইওয়ে টহল পুলিশের ভারপ্রাপ্ত সহকারী কমিশনার স্টুয়ার্ট স্মিথ বলেছেন, তারা গাড়ি থেকে বের হলে এই দুর্ঘটনা ঘটে। তিনি বলেন, ক্যামেরুন পার্কের কাছে এই দুর্ঘটনা ঘটেছে।
    তিনি আরো বলেন, আমরা ধারণা করছি ওই নারী গাড়ি পার্ক করার পর শিশুটি দৌড় দেয়। পরে ওই নারীও শিশুটির পেছনে দৌড় দেয়। এসময় একটি ট্রাক তাদের ধাক্কা দেয়।

    ডিপার্টমেন্ট অব ফ্যামিলি অ্যান্ড কমিউনিটি সার্ভিসেসের একজন মুখপাত্র বলেছেন, যেকোনো শিশুর মৃত্যুই বেদনাদায়ক। আমরা ওই শিশু ও র‌্যাচেলের মৃত্যুতে মর্মাহত।

    তবে পুলিশ বিষয়টি তদন্ত করছে উল্লেখ করে এ বিষয়ে আরো মন্তব্য করতে অস্বীকৃতি জানায় তারা। ওই ট্রাকের ৫৭ বছর বয়সী ড্রাইভারকে মানসিক আঘাতজনিত চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। একই সঙ্গে বাধ্যতামূলক রক্ত এবং প্রশ্রাব পরীক্ষার জন্য তাকে জন হান্টার হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

    পুতিনের সাথে দেখা করবেন ট্রাম্প

    এশিয়ায় ১২ দিনের সফরের অংশ হিসেবে রবিবার জাপানে পৌঁছেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প তাঁর চলতি এশিয়া সফরে রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের সাথে দেখা করবেন বলে বলে জানা গেছে। উত্তর কোরিয়াকে কেন্দ্র করে কোরিয়া উপদ্বীপে চলা সাম্প্রতিক উত্তেজনা নিরসনের লক্ষ্যে দুই নেতা কথা বলবেন বলে ধারণা করা যাচ্ছে।

    এয়ারফোর্স ওয়ানে থাকা সফরসঙ্গী সাংবাদিকদের ট্রাম্প বলেন, ‘আমি আশা করছি পুতিনের সাথে দেখা হবে। উত্তর কোরিয়ার বিষয়ে পুতিনের সাহায্য আমাদের দরকার। এ বিষয়ে আমরা অন্যান্য নেতাদের সাথেও কথা বলব।’

    এশিয়ায় ১২ দিনের সফরের অংশ হিসেবে রবিবার জাপানে পৌঁছেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি জানিয়েছে, ট্রাম্পকে বহনকারী এয়ারফোর্স ওয়ান বিমানটি রবিবার (৫ নভেম্বর) সকালে টোকিওর পশ্চিমাঞ্চলে ইউকোটা ইউএস এয়ারফোর্স ঘাঁটিতে অবতরণ করে। রবিবার জাপানি প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবের সঙ্গে মধ্যাহ্নভোজ করবেন তিনি। দ্বিপাক্ষিক বৈঠক করা ছাড়াও তারা দুইজন এক রাউন্ড গলফও খেলবেন বলে জানিয়েছে বিবিসি।

    পাঁচ বছরের মেয়ের বিয়ের আবদার, তারপর…

    ‘মা আমি বিয়ে করতে চাই।’ সম্ভাব্য মৃত্যুর সামনে দাঁড়িয়ে এই আবদার পাঁচ বছরের শিশুকন্যা সোফিয়ার। মেয়ের সেই ইচ্ছে পূরণ করলেন ক্রিস্টি। নববধূ সাজল সোফিয়া। ব্রিটেনের মেরিডেন শহরের এক করুণ কাহিনী। বছর পাঁচেক আগে শহরের বাসিন্দা ক্রিস্টি সামরেস্টের কোলে জন্ম নিয়েছিল সোফিয়া। জন্মের পর থেকেই এক জটিল রোগে ভোগছে সে। দীর্ঘ পাঁচ বছর থেকে যে সে বেঁচে আছে, তাও চিকিৎসকদের কাছে যেন অলৌকিক। এ ব্যাপারে ক্রিস্টি জানান, সোফিয়ার হৃদযন্ত্রে মারাত্মক জটিলতা রয়েছে। ডাক্তাররা জানিয়েছেন, সোফিয়া কোনও দিনই সুস্থ হবে না। যতদিন বেঁচে থাকবে ততদিনই তাকে ধারাবাহিক অস্ত্রোপচারের মুখোমুখি হতে হবে। চিকিৎসকরা এ ব্যাপারে ডেইলি মেল সংবাদ মাধ্যমকে জানান, সোফিয়ার জন্ম হয়েছিল জেনেটিক হার্ট প্রোবলেম নিয়ে। তাঁর হৃদযন্ত্রের অর্ধেকটাই নেই। ডানদিকের অংশটা না থাকায় জন্মের পর থেকে এখন পর্যন্ত তিনবার তাঁর ওপেন হার্ট সার্জারি করা হয়েছে। চলতি মাসেই চতুর্থবার ওপেন হার্ট সার্জারি হবে। ডাক্তাররা বলছেন এ ধরণের ‘ক্রোমজমাল ডিসঅর্ডার’ নিয়ে একটি মানুষ বেঁচে থাকতে পারে না। সোফিয়া চমৎকার ছাড়া আর কিছুই নয়।

    নভেম্বর মাসের শেষের দিকেই হবে সোফিয়ার চতুর্থ অপারেশন। সেই জটিল অপারেশনের পর সোফিয়া বাঁচবে কিনা তার নিশ্চয়তা নেই। মৃত্যু সমসময়ই যেন তার ছায়াসংগী। তাই এই মুহূর্তে সোফিয়ার পরিবার তাঁর সব ইচ্ছে পূরণ করতে আপ্রাণ প্রয়াস চালিয়ে যাচ্ছেন। কয়েকদিন আগে সোফিয়া তাঁর মাকে বলে, ‘মা আমি বিয়ে করতে চাই।’ সে তাঁর ছয় বছরের বেস্ট ফ্রেন্ড হান্টারকে বিয়ে করতে চায় বলে জানানোর পর থেকেই শুরু হয় তোরজোর। মেয়ের ইচ্ছে পূরণের জন্য ক্রিস্টি বিষয়টি নিয়ে হান্টারের পরিবারের সঙ্গে কথা বলেন। প্রস্তাবে সাড়া দেন হান্টারের পরিবারের সদস্যরা। যেহেতু বাল্যবিবাহ অপরাধ তাই দুটি পরিবার মিলে আয়োজন করেন এক বিশেষ ওয়েডিং ফটো শ্যুট সেশন। হান্টার স্যুট পরে আর সাদা গাউন গায় জড়িয়ে নববধূ সাজে সোফিয়া।

    স্থানীয় একটি পার্কে এই ফটো শ্যুট করা হয়। সোফিয়া-হান্টারের এই ফটো সোশ্যাল মাধ্যমে প্রকাশিত করার পর তা ভাইর‍্যাল হয়ে যায় গোটা দুনিয়ায়। একই সঙ্গে বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তের মানুষ সোফিয়ার দীর্ঘায়ু কামনা করছেন। অনেকে এগিয়ে এসেছেন আর্থিক সহায়তার জন্যও। ক্রিস্টি এ ব্যাপারে বলেন, ‘আশা করছি সোফিয়া দীর্ঘজীবী হবে। আর যখন তাঁর বয়স ২৫ হবে তখন সে যেন হান্টারকে বিয়ে করতে পারে। সোফিয়া হাসি-খুশি, সুস্থ জীবন লাভ করুক।’ এদিকে, হান্টারের মা ট্রেসি বলেছেন, ‘আমি সোফিয়ার খুশির জন্য সাধ্যমত সব ধরণের চেষ্টা করছি। শুধু মেয়েটা দীর্ঘজীবী হোক। বেঁচে থাকুক। ঈশ্বরের কাছে এই কামনা করছি।’

    ব্রিটেনে মন্ত্রী-এমপিদের যৌন কেলেংকারির নানা কাহিনী

    ব্রিটেনে পার্লামেন্ট সদস্য এবং মন্ত্রীদের হাতে বিভিন্ন সময় নানাজনের যৌন হয়রানির শিকার হবার ঘটনা ফাঁস হবার পর এ নিয়ে ব্যাপক হৈচৈ শুরু হয়েছে। ব্রিটেনের পত্রিকাগুলো এখন প্রতিদিনই এ নিয়ে নানা রকম খবর ছাপছে। জানা যাচ্ছে যে যাদের বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির অভিযোগ উঠছে তার মধ্যে কনসারভেটিভ এবং লেবার উভয় দলেই সাবেক ও বর্তমান মন্ত্রী-এমপিরা রয়েছেন। কমন্স লিডার এ্যান্ড্রেয়া লিডসম বলেছেন, ক্যাবিনেট অফিস সুনির্দিষ্ট অভিযোগগুলো নিয়ে তদন্ত করছে, এবং গুরুতর অভিযোগগুলো পুলিশের কাছে তোলা উচিত।

    প্রথমে খবর বেরোয় যে পার্লামেন্টের গবেষক ও সহকারীরা একটি গহোয়াটসএ্যাপ গ্রুপ ব্যবহার করে প্রধান দুই দলেল এমপিদের খারাপ ব্যবহার সম্পর্কে তথ্য বিনিময় করছেন। এর পর দি টাইমস রিপোর্ট করে যে একজন মন্ত্রীসহ চারজন এমপি বহুদিন ধরে ওয়েস্টমিনস্টারে তরুণী মেয়েদের যৌন হয়রানি করে আসছেন।

    একজনের বিরুদ্ধে অভিযোগ ওঠে যে তিনি তার সহকারীকে ‘যৌন খেলনা’ কিনে আনতে বলেছিলেন।

    আরেকজন মন্ত্রীর বিরুদ্ধে অভিযোগ তিনি ১৯ বছর বয়স্ক এক তরুণীর সাক্ষাতকার নেবার পর তাকে আদিরসাত্মক মেসেজ পাঠান এবং তার স্তন নিয়ে মন্তব্য করেন।

    এর মধ্যে ব্রিটেনের প্রতিরক্ষামন্ত্রী স্যার মাইকেল ফ্যালন সান পত্রিকার কাছে স্বীকার করেছেন যে তিনি সাংবাদিক ও রেডিও উপস্থাপিকা জুলিয়া হার্টলি-ব্রুয়ারের হাঁটু অশোভনভাবে স্পর্শ করেছিলেন।

    কয়েকজন বলেছেন, এসব ঘটনা নিয়ে অভিযোগ করলেও কোন ফল হয় নি। এন্ড্রেয়া লিডসম স্বীকার করেছেন যে এসব অভিযোগ আমলে নেবার বর্তমান পদ্ধতি যথেষ্ট নয়। এসব ঘটনার রিপোর্ট বেরুনোর পর পার্লামেন্টের স্পিকার জনি বারকো ও লেবার নেতা জেরেমি করবিনসহ সিনিয়র রাজনীতিবিদরা এর তীব্র নিন্দা জানান।

    এ নিয়ে ব্রিটেনের পত্রিকাগুলোয় ব্যাপক লেখালিখি হচ্ছে।

    গতকাল দৈনিক টেলিগ্রাফ শিরোনাম করে: এই যৌন কেলেংকারী এমপিদের টাকা খরচ নিয়ে যে কেলেংকারি হয়েছিলো – তাকেও ছাড়িয়ে যেতে পারে। লন্ডনের মেট্রো পত্রিকায় শিরোনাম করেছে ‘পেস্টমিনস্টার ক্র্যাকডাউন’ – অর্থাৎ যৌন-কীটদের বিরুদ্ধে অভিযান শুরু হয়েছে। টাইমস শিরোনাম করেছে যে এর ফলে কিছু মন্ত্রী বরখাস্ত হতে পারেন।

    বায়ুমণ্ডলে কার্বন ডাই অক্সাইডের পরিমাণ রেকর্ড ছাড়িয়েছে

    পৃথিবীর বায়ুমণ্ডলে ২০১৬ সালে ঘণীভূত কার্বন ডাই অক্সাইডের পরিমাণ রেকর্ড ছাড়িয়েছে। বিশ্ব আবহাওয়া সংস্থার (ডব্লিউএমও) মতে, এর আগের ১০ বছর গড়ে যে হারে কার্বন ডাই অক্সাইড নিঃসরণ হয়েছে গত বছর সেই নিঃসরণের মাত্রা ছিল তারচেয়েও ৫০ শতাংশ বেশি।

    গবেষকরা জানিয়েছেন, মানুষের কার্যকলাপ ও এল নিনো আবহাওয়ার উপকরণগুলোর যৌথভাবে কার্বন ডাই অক্সাইডের মাত্রা যে পর্যায়ে নিয়ে গেছে তা গত আট লাখ বছরেও দেখা যায়নি। এটি বৈশ্বিক উষ্ণতাকে ব্যাপকভাবে অনিয়ন্ত্রণযোগ্য করে তুলছে।

    বিশ্ব আবহাওয়া সংস্থা তাদের প্রতিবেদনে জানিয়েছে, ২০১৬ সালে বায়ুমণ্ডলে কার্বন ডাই অক্সাইডের মাত্রা ছিল ৪০৩ দশমিক ৩ পিপিএম। অথচ ২০১৫ সালে এটি ছিল ৪০০ পিপিএম।

    ডব্লিউএম’র প্রধান ড. ওকসানা তারাসোভা বলেছেন, গত ৩০ বছরের মধ্যে আমাদের দেখা এটাই সর্বোচ্চ বৃদ্ধি। এর আগে ১৯৯৭-১৯৯৯ সালে এল নিনো’র সময় ছিল সর্বোচ্চ বৃদ্ধি এবং সেটা ছিল ২ দশমিক ৭ পিপিএম। এটা এখন ৩ দশমিক ৩ পিপিএম। এটা গত দশবছরের গড়ের চেয়েও ৫০ শতাংশ বেশি।’

    ঝড়ে ইউরোপে নিহত ৬

    শক্তিশালী ঝড়ে বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে মধ্য ও উত্তর ইউরোপ। ঝড়ের আঘাতে জার্মানি, পোল্যান্ড ও চেকপ্রজাতন্ত্রে অন্তত ছয়জনের মৃত্যু হয়েছে।

    নিহতদের মধ্যে জার্মানিতে ৬৩ বছরের এক বৃদ্ধ রয়েছেন। ঝড়ের সঙ্গে আসা জলোচ্ছ্বাসে ভেসে গেছেন তিনি।দেশটির উত্তরাঞ্চলের রাজ্য মেকলেনবার্গ-ভরপোমারর্নে অবকাশযাপন করতে আসা ৪৮ বছরের এক নারী ও ৫৬ বছরের এক ব্যক্তি নৌযান উল্টে মারা গেছে।এছাড় চেক প্রজাতন্ত্র ও পোল্যান্ডে গাছের নিচে চাপা পড়ে মারা গেছে তিনজন।

    ঝড়টি ঘণ্টায় ১৮০ কিলোমিটার বাতাসের বেগ নিয়ে চেক প্রজাতন্ত্রে আঘাত হানে। চেক ও পোল্যান্ডে হাজার হাজার মানুষ বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে। জলোচ্ছ্বাসে জার্মানির হামবুর্গ শহরে আকস্মিক বন্যা দেখা দিয়েছে। জার্মানির কোথাও কোথাও রেল যোগাযোগ বন্ধ রাখা হয়েছে।

    তুর্কি টেলিভিশনের ২ সাংবাদিককে গ্রেপ্তার করেছে মিয়ানমার

    তুরস্কের রাষ্ট্রীয় টেলিভিশন টিআরটি’র দু’জন সাংবাদিককে আটক করেছে মিয়ানমারের পুলিশ। তাদের সঙ্গে আটক করা হয়েছে তাদের দোভাষী ও গাড়ির চালককে। অভিযোগে বলা হয়েছে, তারা মিয়ানমারের পার্লামেন্ট এলাকার কাছে ড্রোন উড়িয়েছিলেন। এমনিতেই মিয়ানমার ও তুরস্কের মধ্যে উত্তেজনা তুঙ্গে। তার মধ্যে নতুন করে সাংবাদিক গ্রেপ্তারে পরিস্থিতি আরো উত্তেজনাকর হয়ে উঠতে পারে। আটক দু’ সাংবাদিকের নাম লাউ হন মেং ও মক চোই লিন।

    প্রথমজন সিঙ্গাপুর থেকে এবং দ্বিতীয় জন মালয়েশিয়া থেকে গিয়েছেন সেখানে। তাদেরকে আটক করে মিয়ানমারের রাজধানী ন্যাপিড’তে জিজ্ঞাসাবাদ করছে পুলিশ। স্থানীয় পুলিশের এক কর্মকর্তাকে উদ্ধৃত করে এ খবর দিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স। এতে বলা হয়, শনিবার সকালে তাদেরকে আটক করা হয়। এর আগে মিয়ানমারে তাদের দোভাষী, স্থানীয়ভাবে সুপরিচিত সাংবাদিক অং নাইং সোয়ে’র ইয়াঙ্গুনের বাসা শুক্রবার সন্ধ্যায় ঘেরাও করে পুলিশ। সেখান থেকে জব্দ করে তার কম্পিউটার ও এর সঙ্গে সংশ্লিষ্ট সব ডকুমেন্ট। তারা অং নাইং সোয়ে’র বিভিন্ন ডকুমেন্টের তল্লাশি করতে থাকে। ন্যাপিড পুলিশ স্টেশন-১ এর কর্মকর্তা শয়ে থাউং বলেছেন, তারা মোট চারজনকে আটক করেছেন। তবে তিনি বিস্তারিত জানাতে অস্বীকৃতি জানান। আটক ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে কোনো অভিযোগ গঠন করা হয়েছে কিনা সে বিষয়ে তিনি চলমান তদন্তের কথা তুলে কোনো কথাই বলেন নি। তিনি শুধু বলেছেন, এখনও বিষয়টিতে আমরা তদন্ত করছি। এ বিষয়ে আর কিছু বলা যাবে না।

    ওদিকে মিয়ানমারের রাষ্ট্রীয় টেলিভিশন এমআরটিভি বলেছে, ড্রোন ব্যবহার করে পার্লামেন্টের ছবি ধারণ করার অনুমতি ছিল না ওই সাংবাদিকদের। এই টিভিতে ওই দু’ সাংবাদিকদের ভিসা দেখানো হয়েছে। বলা হয়েছে, এ ঘটনায় সিঙ্গাপুর ও মালয়েশিয়ার দূতাবাসকে জানিয়েছে মিয়ানমারের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। তবে তাৎক্ষণিক কোনো মন্তব্য করতে অস্বীকৃতি জানিয়েছে তুরস্কের টিভি টিআটি। এ নিয়ে এ বছর মিয়ানমারে আটক করা সাংবাদিকদের সংখ্যা দাঁড়ালো সাত। শীর্ষ স্থানীয় অধিকার বিষয়ক গ্রুপগুলো সতর্কতা উচ্চারণ করেছে। তারা বলছে, সামরিক জান্তার শাসনের অবসান হওয়ার পর মিয়ানমারের সংবাদ মাধ্যম যে স্বাধীনতা অর্জন করেছিল, তা জাতীয় নেত্রী অং সান সুচির অধীনে উল্টোপথে যাচ্ছে। শনিবার আটক স্থানীয় সাংবাদিক অং নাইং সোয়ে আন্তর্জাতিক অনেক মিডিয়ায় কাজ করেছেন।

    প্রায় ৫ দশক সামরিক স্বৈরশাসকের অধীন থেকে দেশ গণতন্ত্রের পথে যাত্রা করা নিয়ে তিনি বহু রিপোর্ট লিখেছেন। তার মা থানডার বলেছেন, পুলিশ তাদের বাড়িতে গিয়ে ব্যাপক তল্লাশি চালিয়েছে। অং নাইংয়ের কমপিউটার ও বিভিন্ন কাগজপত্র তল্লাশি করেছে। তার পরিচয় পত্র দেখতে চেয়েছে। অং নাইং সোয়ে’র মেমোরি কার্ড নিয়ে গেছে। তার কমপিউটার খোলার চেষ্টা করেছে পুলিশ। কিন্তু পারে নি। থানডার বলেন, আমি তাদের কাছে সার্চ ওয়ারেন্ট দেখাতে বলি। কিন্তু পুলিশ বলেছে, তাদের সেটা দেখানোর কোনো প্রয়োজন নেই। কারণ, তারা কোনো মাদকের সন্ধান করছে না। এই অভিযানে অংশ নিয়েছিলেন ইয়াঙ্গুনের মিঙ্গালার তাউং নাউন্ট জেলার প্রশাসক ইয়ে উইন তুন। তিনি নিশ্চিত করেছেন যে, পুলিশের কাছে কোনো ওয়ারেন্ট ছিল না।

    এটার প্রয়োজন ছিল না তাদের। তারা যদি মাদক বা অবৈধ কার্ড গেমের তল্লাশিতে চায় তাহলেই ওয়ারেন্ট প্রয়োজন হয়। তিনি আরো জানান, জেলার পুলিশ প্রধান, স্থানীয় পুলিশ কর্মকর্তারা, অভিবাসন বিষয়ক কর্মকর্তারা, পুলিশের স্পেশাল শাখার কর্মকর্তারা, পুলিশের অন্যান্য কর্মকর্তা সহ প্রায় ২৫ জন সদস্য এই তল্লাশিতে অংশ নেন। উল্লেখ্য, গত ২৫ শে আগস্ট রাখাইনে পুলিশ ও সেনাবাহিনীর পোস্ট ও ক্যাম্পে হামলা চালায় আরাকান রোহিঙ্গা সালভেশন আর্মি (আরসা)। তারপর থেকেই মিয়ানমারের সেনাবাহিনী সহ নিরাপত্তা রক্ষাকারী অন্যান্য বাহিনী, স্থানীয় দোসররা নৃশংস নির্যাতন চালায় রোহিঙ্গা মুসলিমদের ওপর। এর ফলে বাস্তুচ্যুত কমপক্ষে ছয় লাখ রোহিঙ্গা মুসলিম পালিয়ে এসে বাংলাদেশে আশ্রয় নিতে বাধ্য হন। ওদিকে সেপ্টেম্বরের শুরুতে রোহিঙ্গা মুসলিমদের বিরুদ্ধে মিয়ানমার সরকার ‘গণহত্যা’ চালাচ্ছে বলে মন্তব্য করেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তায়্যিপ এরদোগান।

    কাতালোনিয়াকে স্বীকৃতি দেবে না ব্রিটেন -আমেরিকা

    ইউরোপের বড় বড় কোনো শক্তিই কাতালোনিয়ার স্বাধীনতাকে স্বীকৃতি দেবে না বলে জানিয়েছে। যুক্তরাষ্ট্রও কাতালোনিয়ার স্বাধীনতাকে স্বীকৃতি দেবে না বল জানানো হয়েছে। খবর বিবিসি, সিএনএনের।

    স্পেনের সার্বভৌমত্বের প্রতি একাত্মতা প্রকাশ করেছে জার্মানি। অন্যদিকে স্পেনের প্রধানমন্ত্রী মারিয়ানো রাজয়ের কাজের প্রতি সমর্থন জানিয়েছে ফ্রান্স। সমর্থন জানিয়েছে বেলজিয়াম, কানাডা এবং তুরস্কও।

    ব্রিটেন বলেছে, স্পেনের অখণ্ডতা অটুট থাকুক এবং তাদের সংবিধান সমুন্নত থাকুক এটিই তাদের প্রত্যাশা। দেশটির সরকারের একজন মুখপাত্র বলেন, যে গণভোটের উপর ভিত্তি করে কাতালোনিয়া স্বাধীনতা ঘোষণা করেছে সে গণভোট অবৈধ।
    মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র বলেছে, কাতালোনিয়া স্পেনের অখণ্ড অংশ।

    এদিকে স্পেনের প্রধানমন্ত্রী মারিয়ানো রাজয় শুক্রবার কাতালানের পার্লামেন্ট ভেঙ্গে দিয়েছেন। কাতালানের কর্তৃপক্ষ স্বাধীনতা ঘোষণার কয়েক ঘণ্টা পর স্প্যানিশ প্রধানমন্ত্রী এই ঘোষণা দেন।

    প্রধানমন্ত্রী রাজয় বলেছেন, কাতালোনিয়ায় ‘স্বাভাবিকতা ফিরিয়ে আনতে’ সেখানে সরাসরি শাসন জারি প্রয়োজনীয়তা ছিল। তিনি এসময় কাতালানের প্রেসিডেন্ট কার্লোস পুজেমন এবং তার মন্ত্রিসভাকে বরখাস্ত করেছে। বরখাস্ত করা হয়েছে কাতালানের পুলিশ প্রধানকেও।

    শুক্রবার স্পেনের সিনেট রাজয় সরকারকে কাতালোনিয়ায় সরাসরি শাসন জারির অনুমতি দেয়। প্রধানমন্ত্রী রাজয় বলেন, প্রেসিডেন্ট পুজেমনের আইনের শাসন মেনে নেওয়া এবং আঞ্চলিক নির্বাচনে অংশগ্রহণের সুযোগ ছিল। কিন্তু তিনি কাতালোনিয়ার সংখ্যাগরিষ্ঠের মতকে উপেক্ষা করেছেন। তাই বৈধতা ফিরিয়ে আনতে স্পেনের সরকার প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিয়েছে।

    উল্লেখ্য, স্পেনে আগামী ২১ ডিসেম্বর আঞ্চলিক নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে। এর আগে কেন্দ্রীয় সরকারের বাধা উপেক্ষা করে ১ অক্টোবর গণভোটের আয়োজন করা হয় কাতালোনিয়ায়। এতে ৯০ শতাংশ ভোটার কাতালোনিয়ার স্বাধীনতার পক্ষে রায় দেন।